গ্র্যান্ডমাস্টার হওয়ার প্রথম নর্মটি পেলেন ফাহাদ

প্রকাশিতঃ 7:02 pm | April 01, 2024

স্পোর্টস ডেস্ক, কালের আলো:

নবম ও শেষ রাউন্ডে ভিয়েতনামের ফিদে মাস্টারকে হারালেন মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান। এই জয়ে অনেক দিনের অপেক্ষা ফুরিয়ে গ্র্যান্ডমাস্টার হওয়ার পথে এক ধাপ এগোলেন বাংলাদেশের এই দাবাড়ু।

হ্যানয়ে গ্র্যান্ডমাস্টার-৩ চেজ টুর্নামেন্ট ফাহাদ শেষ করেছেন অপরাজিত থেকে। পাঁচ জয় ও চার ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে হয়েছেন রানার্সআপ। তার সমান পয়েন্ট নিয়ে টাইব্রেকিং পদ্ধতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ফিলিপাইনের ইন্টারন্যাশনাল মাস্টার দেনিয়েল কুইজোন।

এই টুর্নামেন্টে সেরা হতে না পারলেও ৭ পয়েন্ট পাওয়ার সুবাদে গ্র্যান্ডমাস্টার হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় তিনটি নর্মের একটি পেয়েছেন ফাহাদ। এর আগেও বেশ কয়েকবার নর্ম পাওয়ার খুব কাছাকাছি গিয়েও হতাশ হয়ে ফিরতে হয়েছিল তাকে।

এর আগে ২০০৮ সালে দেশে ৫ম গ্র্যান্ড মাস্টার হন এনামুল হোসেন রাজিব। এরপর আন্তর্জাতিক মাস্টার হয়েছেন আবু সুফিয়ান শাকিল, মিনহাজ উদ্দিন ও ফাহাদ রহমান। কিন্তু ২০০৮ সালের পর আর কোন খেলোয়াড় গ্র্যান্ড মাস্টার হতে পারেননি। তবে দীর্ঘ ১৫ বছর পরে বাংলাদেশ পুলিশ চেস ক্লাবের খেলোয়াড় আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান ভিয়েতনামের হ্যানয় শহরে অনুষ্ঠিত হ্যানয় গ্র্যান্ড মাস্টার-৩ দাবা প্রতিযোগিতা, মার্চ-২০২৪, জিএমবি-১ হতে একটি ৯ খেলার গ্র্যান্ড মাস্টারের নর্ম অর্জন করেছেন।

সেরা হওয়া দানিয়েলের বিপক্ষে ড্র করে হ্যানয়ের টুর্নামেন্টে যাত্রা শুরু ফাহাদের। অপরাজিত পথচলায় তিনি হারান ভিয়েতনামের গ্র্যান্ডমাস্টার বুই ভিনহকে। ড্র করেন আরও দুই গ্র্যান্ডমাস্টারের বিপক্ষে।

গ্র্যান্ডমাস্টার হতে হলে ফাহাদকে আরও দুটি নর্ম এবং ২৫০০ রেটিং পয়েন্ট পূরণ করতে হবে। বর্তমানে এই ইন্টারন্যাশনাল মাস্টারের রেটিং পয়েন্ট ২৪২৬।

১৯৮৭ সালে বাংলাদেশের তো বটেই, এই উপমহাদেশের প্রথম গ্র্যান্ডমাস্টার হয়েছিলেন নিয়াজ মোর্শেদ। এরপর আরও চারজন পেয়েছেন এই খেতাব- জিয়াউর রহমান (২০০২ সাল), রিফাত বিন সাত্তার (২০০৬ সাল), আব্দুল্লাহ আল রাকিব (২০০৭ সাল) এবং সবশেষ ২০০৮ সালে গ্র্যান্ডমাস্টার হন এনামুল হোসেন রাজীব।

এরপর থেকে চলছে খরা। ষষ্ঠ গ্র্যান্ডমাস্টারের জন্য দেশের অপেক্ষা এরই মধ্যে ১৬ বছর পেরিয়েছে। ফাহাদকে ঘিরে এখন তা অবসানের আভাস মিলছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ পুলিশ ভিয়েতনামে অনুষ্ঠিত এবারের দু’টি প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণের জন্য হ্যানয় গ্র্যান্ড মাস্টার-২ দাবা প্রতিযোগিতা, মার্চ-২০২৪, জিএমএ-২ ও হ্যানয় গ্র্যান্ড মাস্টার-৩ দাবা প্রতিযোগিতা, মার্চ-২০২৪, জিএমবি-১ অংশগ্রহণের জন্য আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমানকে আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতা করেছে।

আইজিপি ও বাংলাদেশ পুলিশ ক্রীড়া পরিষদের সভাপতি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন এবং অতিরিক্ত আইজি (ফিন্যান্স) ও বাংলাদেশ পুলিশ চেস ক্লাবের সভাপতি আবু হাসান মুহম্মদ তারিক নর্ম অর্জনকারী আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এদিকে আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান সোমবার (০১ এপ্রিল) বিকাল ৪.১৫ ঘটিকায় বিমানযোগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে প্রত্যাবর্তন করেছেন। নর্ম অর্জনকারী আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমানকে হযরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে বাংলাদেশ পুলিশ চেস ক্লাবের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email