নামের পূর্বে ‘ডক্টর’ ব্যবহারের অনুমতি পেলেন হাফিজুর রহমান

প্রকাশিতঃ 6:51 pm | August 30, 2022

কালের আলো প্রতিবেদক:

অবশেষে নামের পূর্বে ডক্টর অব ফিলোসফি (পিএইচডি) ডিগ্রি অর্জনের বিষয়টি ব্যবহারের অনুমতি পেয়েছেন আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস ময়মনসিংহের উপপরিচালক মো. হাফিজুর রহমান।

শনিবার (২৭ আগস্ট) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. আলী রেজা স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এই অনুমতি দেওয়া হয়।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘কাজী নজরুল ইসলামের কাব্যগীতিতে বাণী ও সুরের বহুমাত্রিকতা’ বিষয়ে গবেষণার ওপর পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন মো. হাফিজুর রহমান। তার পিএইচডির তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন প্রখ্যাত সংগীতজ্ঞ ও প্রথিতযশা শিক্ষক অধ্যাপক ড. অসিত রায়।

ড. মো. হাফিজুর রহমান ১৯৮৩ সালের ১৩ আগস্ট যশোর জেলার মণিরামপুর উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি চতুর্থ।

ড. হাফিজের শিক্ষাজীবন ছিল অত্যন্ত কৃতিত্বপূর্ণ। তিনি অষ্টম শ্রেণিতে বৃত্তি পেয়েছেন। এরপর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর যশোর জেলার সরকারি কেশবপুর কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকে অধ্যয়ন করেন। এরপর অনার্স-মাস্টার্স করেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনে।

বিজ্ঞান বিভাগের গ্র্যাজুয়েট হওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কলা বিভাগে এমফিল সম্পন্নের পর পিএইচডি গবেষণায় সুযোগ হয়। এমফিলে ঈর্ষণীয় ফলাফলের কারণে এমফিল রূপান্তরিত হয় পিএইচডিতে।

লেখালেখিতেও সমান পারদর্শী ড. মো. হাফিজুর রহমান। উপন্যাস, ছোটগল্প, গীতিকবিতা গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়েছে। এ ছাড়া তিনি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের একজন তালিকাভুক্ত গীতিকার।

কালের আলো/ডিএস/এএ

Print Friendly, PDF & Email