মানিকগঞ্জে বাড়ি থেকে মা ও দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার, ঘাতক আটক

প্রকাশিতঃ 10:38 am | May 08, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বালিয়াখোরা ইউনিয়নের আঙ্গুরপাড়া গ্রামে একটি ঘর থেকে মা ও দুই মেয়ের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ

নিহতরা হলেন- ওই এলাকার দন্ত চিকিৎসক আছাদুজ্জামানের স্ত্রী লাবনী আক্তার (৩৫), মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছোঁয়া আক্তার (১৬) ও আরেক মেয়ে কথা আক্তার (১২)।

রোববার (০৮ মে) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার বালিয়াখোড়া ইউনিয়নের আঙ্গারপাড়া গ্রাম থেকে তিনটি মরদেহ উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। পরে ওই নারীর স্বামী আসাদুজ্জামান রুবেলকে আটক করে পুলিশ।

ঘিওর থানার ওসি মো. রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লব জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সকাল ৭টার দিকে ওই গ্রামে গিয়ে দন্ত চিকিৎসক রুবেলের স্ত্রী লাভলী আক্তার (৩৫), বড় মেয়ে ছোঁয়া আক্তার (১৬) এবং ছোট মেয়ে কথা আক্তারে (১২) লাশ পান তারা। তিনজনের গলাকাটা লাশ বিছায় পড়ে ছিল।

উপজেলার আঙ্গারপাড়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে রুবেল (৪০) পেশায় একজন দন্ত চিকিৎসক। বানিয়াজুরী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় তার চেম্বার রয়েছে।

ওসি বিপ্লব বলেন, দাম্পত্য কলহের জেরে ভোর রাতের কোনো এক সময় রুবেল তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে জবাই করেছে বলে স্থানীয়দের ভাষ্য। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। রুবেলকে আমরা নজরদারিতে রেখেছি। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শিবালয় সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নুরজাহান লাবনী বলেন, দুই মেয়েসহ মাকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় তদন্ত চলছে। এ ঘটনার খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।

কালের আলো/ডিএস/এমএইচএ

Print Friendly, PDF & Email