টাইগারদের সঙ্গে নতুন কোচের প্রথম দিন

প্রকাশিতঃ 6:27 pm | August 21, 2019

স্পোর্টস ডেস্ক, কালের আলো:

সকাল ৬টায় ঘুম থেকে ওঠেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। এরপর চলে আসেন নতুন কর্মসংস্থান মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। সঙ্গে ছিলেন স্বদেশি চার্ল ল্যাঙ্গাভেল্ট।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ও ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ সামনে রেখে মিরপুরে চলছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প।

বুধবার(২১ আগস্ট) প্রথম প্রহরেই ক্যাম্পে যোগ দেন দুই নতুন কোচ। সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ছিল ক্রিকেটারদের রানিং সেশন। সেশনের পুরোটা সময় শিষ্যদের সঙ্গে কাটান ডমিঙ্গো-ল্যাঙ্গাভেল্ট। কথা বলেন শিষ্যদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে। আলোচনা করেন ক্যাম্প ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়নের সঙ্গেও।

এরপর ডমিঙ্গো সরাসরি চলে আসেন সংবাদ সম্মেলনে। প্রথম দিনে শিষ্যদের প্রতি তাঁর পরামর্শ, ‘ছেলেদের জন্য প্রথম বার্তা থাকবে নিজেদের সেরা ছন্দে থাকার পথটা বের করা। ফিটনেসের প্রতি বাড়তি তাগিদ দেওয়া। লাইন-লেন্থ অবশ্যই যেকোনো বোলারের জন্য প্রথম বিষয়। একই সঙ্গে পরিশ্রম এবং বুদ্ধিমত্তা দিয়েই এগিয়ে যেতে হবে।’

এর আগে বাংলাদেশে ছয়বার এসেছেন ডমিঙ্গো। এবার নতুন দায়িত্ব নিয়ে বাংলাদেশ দলকে গড়ার স্বপ্ন নিয়ে এসেছেন। কিন্তু বাস্তবতা যে সহজ নয়, সেটাও মনে করিয়ে দিলেন প্রোটিয়া কোচ। বাস্তবতা মেনেই এ দেশের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে কোচ বলেন, ‘এখানে সব বদলে দিতে আসিনি। উপমহাদেশে সব সময়ই ক্রিকেট খেলা হয়। আমরা আশা করি না, বাংলাদেশ ক্রিকেট আমাদের সঙ্গে মানিয়ে নেবে। বরং বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে আমরা মানিয়ে নেব।’

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের সামর্থ্য কিংবা প্রতিভা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু সামর্থ্যের প্রকাশটা ধারাবাহিক নয়। সম্প্রতি বাংলাদেশকে বেশ ভুগিয়েছে পেস বোলিং বিভাগ। দেশের বাইরে পেসারদের অবস্থা বেশি বাজে। নতুন বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গাভেল্টের মূল লক্ষ্য বিদেশের মাটিতে ভালো বল করতে পারে এমন পেসার খুঁজে বের করা।

শিষ্যদের সঙ্গে প্রথম দিন কাটানোর পর ল্যাঙ্গাভেল্ট বলেন, ‘আমার জন্য সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো বিদেশের মাটিতে ভালো বল করতে পারে এমন পেসার খুঁজে বের করা। অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশে বোলিং পিচ বানানো হয়। সেখানে আমাদের পেসাররা যেন কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে, সেভাবে তৈরি করা। ’

সব মিলিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আজ থেকে শুরু হলো দুই প্রোটিয়া কোচ ডমিঙ্গো-ল্যাঙ্গাভেল্টের বাংলাদেশ অধ্যায়। দুই কোচের প্রথম পরীক্ষা আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর একমাত্র টেস্টে আফগানদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। এরপর আফগানিস্তান-জিম্বাবুয়েকে নিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে টাইগাররা। আট ম্যাচের সেই সিরিজ শুরু হবে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর।

কালের আলো/বিআর/এমএম

Print Friendly, PDF & Email