হামলায় আহতদের পাশে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত, বিচার চান হামলাকারীদের

প্রকাশিতঃ 4:04 am | May 14, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো :

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে নিজ সংগঠনের নেতা-নেত্রীদের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস।

কারো কথা না শুনে, নিজ চোখে হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেত্রীদের দেখে এসে নিজের ফেসবুক ওয়ালে বিস্ফোরক এ স্ট্যাটাস দেন তিনি।

আরো পড়ুন: ‘ব্যর্থ’ শোভন-রাব্বানী, পদবঞ্চিত নারী নেত্রীদের ওপর ‘মধ্যযুগীয়’ হামলার নেপথ্যে কী?

যদিও পরবর্তীতে তিনি তাঁর এ স্ট্যাটাসটি প্রত্যাহার করে নেন। তবে তাঁর আগেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে এটি ছড়িয়ে পড়ে।

সঞ্জিত এ স্ট্যাটাসে আহত বাংলাদেশ কুয়েত-মৈত্রী হলের সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী শায়লা’র মর্মান্তিক ছবিটিও পোস্ট করেন। এ ঘটনায় দলীয় পরিমন্ডলে নতুন করে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

আরো পড়ুন: শেখ হাসিনার সাক্ষাত চান আহত ছাত্রলীগ নেতা-নেত্রীরা

সোমবার (১৩ এপ্রিল) দিনগত রাত ২ টা ৪২ মিনিটের দিকে দেওয়া এ স্ট্যাটাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ (ঢাবি) সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস লিখেন, ‘আমার বোনের উপর হামলার বিচার চাই, করতে হবে।

আরো পড়ুন: ছাত্রলীগের হামলার নেতৃত্বে ৫ নেতা, নির্দয়ভাবে পেটানো হয়েছে শ্রাবণী শায়লাকে!

ছাত্রলীগের হল সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক কেউ উড়ে এসে হয়নি, এর মর্মও সবাই বুঝবে না, তবে এদের যে নিরবিচ্ছিন্ন ডেডিকেশন, তাতে যারা সন্দেহ করে এরা বেজন্মা, দলের বিপদে এরাই দলে দলে মিছিল নিয়ে এসে দলকে রক্ষা করে। এটাই কী প্রাপ্য ছিলো?

আরো পড়ুন: বিবাহিত সোহানী তিথি ও আঞ্জুমান অনু কীভাবে ছাত্রলীগের কমিটিতে?

স্ট্যাটাসে সঞ্জিত আরো লিখেন- যারা দায়ী বিচার হতেই হবে, হুঁশিয়ার, সাবধান!’ শেষ অংশে লিখেন- আমি জগন্নাথ হলের সাবেক সভাপতি বল্লাম চোখে দেখে এসে কথাগুলো বল্লাম, ভাইবেন না কারো কথা শুনে বলছি।’

পোস্টটি ডিলিট করার আগে মন্তব্যের বন্যা বয়ে যায়। স্ট্যাটাসটিতে লাইক দিয়েছিলেন ৮৯৪ জন। এদিকে, সঞ্জিতের এ বক্তব্যের প্রশংসা করেছেন দলটির তৃণমূলের বঞ্চিত ও ত্যাগী নেতারা।

আরো পড়ুন: শোভন-রাব্বানীর ‘গোমর ফাঁস’করলেন ছাত্রলীগ নেত্রী জেরিন দিয়া

তাঁরা বলছেন, সঞ্জিত সব সময় অপ্রিয় সত্য কথাই বলেন। কারো রক্তচক্ষুকে ভয় করেন না। তাঁর মতো এমন নেতা যদি সবাই হতো।’

কালের আলো/এএ

Print Friendly, PDF & Email