পাল্লেকেলেতে ২০৯ রানের বড় হারের লজ্জা বাংলাদেশের

প্রকাশিতঃ 12:14 pm | May 03, 2021

স্পোর্টস ডেস্ক, কালের আলো:

দুই ইনিংস মিলেও শ্রীলঙ্কার করা প্রথম ইনিংসের রানের সমান করতে পারল না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার প্রবীন জয়াবিক্রমের স্পিন বিষে নীল হয়ে ম্যাচটি পরাজিত হয়েছে ২০৯ রানের বিশাল ব্যবধানে। দুই ইনিংস মিলে ১১ উইকেট নিয়েছেন জয়াবিক্রম।

ফলে সিরিজের প্রথম ম্যাচের ড্রয়ে মাত্র ৩০ পয়েন্ট নিয়েই শেষ হলো বাংলাদেশের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। আর শ্রীলঙ্কা সিরিজটি জিতল ১-০ ব্যবধানে। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ৪৯৩ রান করেছিল শ্রীলঙ্কা। জবাবে বাংলাদেশ অলআউট হন ২৫১ রানে।

২৪২ রানে পিছিয়ে থেকে ফলোঅনে পড়লেও সফরকারীদের তা করায়নি স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় ইনিংসে নিজেরা ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে করে ১৯৪ রান। ফলে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪৩৭ রানের। যা তাড়া করে জিততে ইতিহাস গড়তে হতো বাংলাদেশকে।

শ্রীলঙ্কার দেয়া ৪৩৭ রানের লক্ষ্যে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমে ম্যাচের চতুর্থ দিনই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ, স্কোরবোর্ডে রান তুলতে পেরেছিল ১৭৭। ফলে শেষদিন জয়ের জন্য বাকি থাকে আরও ২৬০ রান। কিন্তু হাতে উইকেট ছিল ৫টি।

শেষ স্বীকৃত ব্যাটিং জুটি মেহেদি হাসান মিরাজ ও লিটন দাসের কাঁধে ছিল অসাধ্য সাধনের দায়িত্ব। কিন্তু সেই মিশনে শুরুতেই ক্ষান্ত দেন লিটন। দিনের তৃতীয় ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। জয়াবিক্রমের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ৪৬ বলে ১৭ রান করা লিটন। রিভিউ নিয়েও নিজের উইকেট বাঁচাতে পারেননি তিনি।

প্রথম ইনিংসে ৬টির পর দ্বিতীয় ইনিংসে জয়াবিক্রমের শিকার ৫ উইকেট। দুই ইনিংস মিলে অর্থাৎ ম্যাচে তার শিকার ১৭৮ রানে ১১ উইকেট। টেস্ট ক্রিকেটে ১৩ বছর পর অভিষেক ম্যাচে কোনো বোলার নিলেন ১০ বা এর বেশি উইকেট। এছাড়া বাঁহাতি স্পিনারদের মধ্যে এটিই অভিষেক ম্যাচে সেরা বোলিংয়ের বিশ্বরেকর্ড।

কালের আলো/এসজে/এমএম

Print Friendly, PDF & Email