সোনালু গাছের নিচে শেখ রেহানাকে নিয়ে ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 6:28 pm | May 10, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

বৈশাখের তপ্ত দুপুরে নিজ গ্রামের সবুজে ঘেরা মায়াময় পরিবেশে ছোট বোন শেখ রেহানাকে নিয়ে যেন শৈশবে ফিরে গেলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি তুললেন সোনালু গাছের নিচে দাঁড়িয়ে।

শুক্রবার (১০ মে ২০২৪) টুঙ্গিপাড়ার বাসভবন থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে যাওয়ার পথে অবতারণা ঘটে এই অনন্য দৃশ্যের।

সোনালু ও কৃষ্ণচূড়া গাছের ছায়া সুনিবিড় পথ পায়ে হেঁটে পেরোবার সময় প্রধানমন্ত্রী মধুমতি নদীর সঙ্গে যুক্ত খালের পাশে দাঁড়িয়ে পড়েন হঠাৎ। কাছে ডেকে নেন ছোট বোন শেখ রেহানাকে। যে গ্রামে জন্ম ও বেড়ে ওঠা, সেই পিতৃভূমিতে সোনালু গাছের ছায়ায় ছোট বোনকে নিয়ে যেন ফিরে গেলেন শৈশবের স্মৃতিময় দিনগুলোতে।

প্রধানমন্ত্রীর চিত্রগ্রাহক ইয়াসিন কবির জয় জানিয়েছেন, সোনালু ও কৃষ্ণচূড়া গাছের ছায়া সুনিবিড় পথ পায়ে হেঁটে পার হওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী মধুমতি নদীর সঙ্গে যুক্ত খালের পাশে এসে ছোট বোন শেখ রেহানাকে নিয়ে ছবি তোলেন।

পরে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে ‘দরিয়ারকুল গ্রাম উন্নয়ন সমিতি’র সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি সংক্ষিপ্তভাবে বহুমাত্রিক কর্মসূচির বর্ণনা দেন, যার মধ্যে রয়েছে ‘আমার বাড়ি, আমার খামার’, জনগণকে আর্থিক অনুদান প্রদান, সার্বজনীন পেনশন প্রকল্প এবং গ্যারান্টি ছাড়া ঋণ প্রদান, সমাজ থেকে দারিদ্র্য বিমোচন করার জন্য যুবকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ প্রদান ইত্যাদি।

এসময় প্রধানমন্ত্রী দেশের প্রতিটি এলাকায় সমবায় সমিতি গঠন করে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি, ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মাধ্যমে দারিদ্র্য দূরীকরণে আওয়ামী লীগ নেতাদের আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ রক্ষায় তার দলের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে বর্ষাকালে দলের প্রত্যেক সদস্যকে অন্তত তিনটি করে গাছের চারা লাগানোর আহ্বান জানান।

এর আগে আজ সকালে ব্যক্তিগত সফরে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু দিয়ে সড়কপথে তার পৈতৃক নিবাস গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান। সেখানে পৌঁছানোর পরপরই শেখ হাসিনা তার বোন শেখ রেহানা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর শেখ হাসিনা স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতির স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। আজ বিকালে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন তিনি।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

 

Print Friendly, PDF & Email