ঢাকার মেট্রোরেল যেসব কারনে আলাদা…

প্রকাশিতঃ 2:14 pm | December 29, 2022

ডেস্ক রিপোর্ট, কালের আলো:

দেশের প্রথম মেট্রোরেলের উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল বুধবার (২৮ ডিসেম্বর)। বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) থেকে সাধারণ যাত্রীদের জন্য মেট্রোরেল খুলে দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে আধুনিক গণপরিবহনের নতুন যুগে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশ। অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশের মেট্রোরেল আলাদা বলে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর পুত্র এবং তার তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে সজীব ওয়াজেদ জয় মেট্রোরেল সংক্রান্ত একটি রিল (ভিডিও) প্রকাশ করেন। পোস্টে জানানো হয়, বিজয়ের মাসে বাংলাদেশের আরেকটি অর্জন মেট্রোরেল।বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় এক নতুন দিগন্তের শুরু।

ঢাকার মেট্রোরেল কেন অন্যান্য দেশ ও শহরের মেট্রোরেল থেকে আলাদা তার তথ্য জানানো হয়েছে ভিডিওতে। সেখানে বলা হয়েছে–বিশ্বমানের সুবিধা নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে এমআরটি লাইন ৬। প্রথমবারের মতো দেশের কোনও ট্রেনে থাকছে না কোনও ব্যালাস্ট আর স্লিপার। শব্দ আর ঝাঁকুনি কমাতে মেট্রোরেল লাইন ৬ এর তিনটি পয়েন্টে থাকছে সর্বাধুনিক ম্যাস স্প্রিং সিস্টেম। ফলে শব্দদূষণের ঝুঁকি অনেক কমে গেছে।

মিরপুর ডিওএইচএস, ফার্মগেট ও শাহবাগ পয়েন্টে ব্যবহার করা হয়েছে এই প্রযুক্তি। বিদ্যুতের ব্যবহার কমাতে ব্যবহার করা হয়েছে রিজেনারেটিভ ব্রেকিং-বেজড হাইব্রিড প্রযুক্তি।

যাত্রীদেরর বাড়তি নিরাপত্তার জন্য রয়েছে প্ল্যাটফর্ম স্ক্রিন ডোর সিস্টেম। মেট্রোরেল লাইন ৬ এর পাঁচটি পয়েন্টে ট্রেনটি ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারবে। প্রতিটি স্টেশনের সিঁড়ি, প্রবেশপথ, লিফট ও টয়লেটে প্রতিবন্ধীদের সুবিধার্থে থাকছে বিশেষ চিহ্ন।

সবকটি লাইন চালু হলে প্রতিদিন পাঁচ লাখেরও বেশি লোক যাতায়াত করতে পারবেন।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email