পর্দায় আসছে নতুন ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’

প্রকাশিতঃ 9:27 pm | November 11, 2022

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলো:

মার্ভেল সিনেমাটিক ইউনিভার্সের সুপারহিরো ছবি ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০১৮ সালে। দারুণ জনপ্রিয়তা পাওয়া এ ছবির সিকুয়েল দর্শকদের কাছে প্রত্যাশিতই ছিলো। নির্মাতা প্রতিষ্ঠানও সেভাবে পরিকল্পনা করেছিলো।

তবে বাধ সাধে মহামারি কোভিড-১৯। প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে কাজ শুরুর পর আসে আরও বড় ধাক্কা। ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করা চ্যাডউইক বোজম্যানের অকাল মৃত্যু সবাইকে থমকে দেয়। অনেকটা অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে যায় ছবিটি। যদিও হাল ছাড়েননি নির্মাতা। যেখানে আটকে গিয়েছিলো সেখান থেকেই শুরু করেন। সমস্ত শঙ্কা কাটিয়ে অবশেষে দর্শকদের সামনে আসছে ‘ব্ল্যাক প্যান্থার: ওয়াকান্ডা ফরএভার’।

১১ নভেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে বহুল আলোচিত এ ছবি। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সেও মুক্তি পাবে ছবিটি। নিশ্চিত করেছেন প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

নতুন সিকুয়েলে টি’চালার চরিত্র নিয়ে যেমন কৌতূহল ছিলো তেমনি গুঞ্জনও হয়েছে অনেক। সবকিছু বিবেচনায় রেখে সিদ্ধান্ত নিতেও বেশ বেগ পেতে হয় প্রযোজক কেভিন ফিজ ও পরিচালক রায়ান কুগলারকে। ফিজ নিজেই মুখ খোলেন এ ব্যাপারে। টি’চালা চরিত্রের জন্য নতুন কাউকে নিচ্ছেন না তারা। তার মতে, ‘এত তাড়াহুড়ো করে নতুন কাউকে আনতে চাচ্ছি না। স্ট্যান লি সবসময় মার্ভেলকে একটা দুনিয়া মনে করতেন। আলাপ হতো চরিত্র এবং গল্পগুলোর বিস্ময়কর সৌন্দর্য ও চমৎকারিত্ব নিয়ে। মার্ভেলে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের নানা উপাদান বিদ্যমান। পৃথিবী এখনও চ্যাডউইককে মিস করছে, নতুন গল্পে রায়ান সেটা ফুটিয়ে তুলেছেন। চ্যাডউইকের অনুপস্থিতি পরবর্তী কাজগুলোয় কীভাবে প্রভাব ফেলবে, সে ব্যাপারেও আলোচনা হয়েছে তার সঙ্গে। কথা হয়েছে ওয়াকান্ডা ও ব্ল্যাক প্যান্থার বিষয়ক ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়েও।’

ছবিটি নিয়ে কুগলারের পরিকল্পনায় আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন অভিনেত্রী লুপিতা নিয়ং। তিনি বলেন, ‘রায়ান আমাকে যা শুনিয়েছে তা যেমন সত্য, তেমন সুন্দর। আমার চোখ পানিতে ভরে গিয়েছিল শুনে।’ এদিকে কুগলার নিজেও এ অসম্ভবকে সঙ্গে নিয়ে এগোতে চান। তার ভাষায়, ‘‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ সিনেমায় অভিনেতাদের দলটা আমাদের জন্য ছিল একটা ব্যান্ডের মতো। চ্যাডউইক সেখানে প্রধান কণ্ঠশিল্পী। ফলে চ্যাডউইককে ছাড়া ব্যান্ডটা গাইতে পারে এমন একটা গান খোঁজার মতো অবস্থা আমার।’’

ছবিতে উল্লেখযোগ্য চরিত্রে দেখা যাবে লেটিটিয়া রাইট, ডানাই গুরিরা, এঞ্জেলা বাসেত ও উইনস্টন ডিউককে।

ছবির ট্রেলারে টি’চালার মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছে। অধিকাংশ চরিত্রকেই ফেরত এনেছে মার্ভেল। কেউ কেউ যুক্ত হয়েছে নতুন করে। প্রয়াত অভিনেতা চ্যাডউইক বোজম্যানকেও ট্রেলারে দেখা গেছে, যিনি টি’চালা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ১ম পর্বে। এ সিনেমার শুটিং চলাকালীন ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’-এ অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি জয় করেছিলেন বিশ্বব্যাপী হাজারো ভক্তের হৃদয়। এবার ‘ব্ল্যাক প্যান্থার ২’-এর মধ্যে দিয়ে আবারও যেন তাকে ফিরে পাওয়া। এবার তার হাল ধরবেন লেটিয়া রেইট। যিনি সিনেমাতে ব্ল্যাক প্যান্থারের বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এ ছাড়াও ট্রেলারে জুড়ে দেখা যায় একাধিক চমক, কখনও সাম্রাজ্য প্রসারের তাগিদে রানির পদক্ষেপ, কখনও আবার কড়া বার্তায় সকলকে সাবধান করে জাতিসংঘের ভার নিতে এগিয়ে যাওয়ার শপথ। জলের নিচে একটি শিশুর জন্মের দৃশ্যও সকলকে চমকে দেয়। কখনও আবার পুরুষদের দেখা যায় বিশাল তিমিতে চড়ে সাগর পাড়ি দিতে। নদী থেকে যোদ্ধার বেরিয়ে আসা, যুদ্ধ শুরু হওয়া, একাধিক চমকে ট্রেলার জুড়ে গল্পের নানা ভাঁজ চোখে পড়ে।

এই সিনেমার আরেক আকর্ষণ- নারীকণ্ঠে বব মার্লের গান, যা সিনেমার ক্ষেত্রে আরও এক মাইলফলক। সবমিলিয়ে দর্শকদের জন্য দারুণ কিছুই অপেক্ষা করছে বলা যায়।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email