বাবাকে দেশে ভুল চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে : সোহেল রানার ছেলে

প্রকাশিতঃ 12:27 pm | November 09, 2022

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলো:

চোখ সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন কিংবদন্তি অভিনেতা সোহেল রানা। গত ৩০ অক্টোবর তাকে সেখানে নিয়ে গেছেন তার স্ত্রী জিনাত বেগম ও ছেলে মাশরুর পারভেজ। এর আগে দেশের এভারকেয়ার হাসপাতালে অভিনেতার চিকিৎসা করানো হয়েছিল। কিন্তু তাতে সোহেল রানার চোখের অবস্থার আরও অবনতি হয়। তাই বাধ্য হয়ে দ্রুত দেশের বাইরে নেওয়া হয়েছে তাকে।

এদিকে সিঙ্গাপুর থেকেই বিষয়টি নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নায়কপুত্র মাশরুর পারভেজ। তার দাবি, দেশের হাসপাতালে তার বাবাকে ভুল চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল। এজন্য তিনি এভারকেয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন।

ভিডিও বার্তায় অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘আজ (৭ নভেম্বর) সোমবার দুপুরের দিকে বাবা অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন। দেশের স্বনামখ্যাত একটি বেসরকারি হাসপাতালে আমার বাবার চোখের সার্জারি করায় সমস্যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে…।’

মাশরুরের ভিডিও বার্তায় তার বাবাকে যে চিকিৎসক সার্জারি করিয়েছেন তার নাম উল্লেখ করেছেন। পাশাপাশি হাসপাতালের নামও জানান তিনি। একই সঙ্গে মাশরুর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও ডাক্তারের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, অক্টোবরের ৩০ তারিখ চোখের চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়েছে খ্যাতিমান অভিনেতা মাসুদ পারভেজ সোহেল রানাকে। সোহেল রানার চোখে যে অস্ত্রোপচারটি করা হয়েছে সেটির নাম ক্যাটারাক্ট সার্জারি। এর আগেও সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে তার ডান চোখে এই সার্জারি করা হয়েছিল। রুটিনমাফিক পরের সার্জারির জন্য দেশের হাসপাতাল বেছে নেওয়া হয়েছিল।

রাজধানীর একটি হাসপাতালে গত ২৫ অক্টোবর সোহেল রানার চোখে অস্ত্রোপচার হয়। তবে সমস্যা সমাধানের বদলে এতে জটিলতা সৃষ্টি হয়। এ অবস্থায় তাকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিবার। সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোহেল রানাকে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email