বিদেশে পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনতে সেল গঠনের নির্দেশ হাইকোর্টের

প্রকাশিতঃ 5:31 pm | August 31, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের চিহ্নিত করতে এবং পাচার হওয়া অর্থ দেশে ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) প্রধান মো. মাসুদ বিশ্বাসকে একটি গবেষণা সেল গঠনের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

বুধবার (৩১ আগস্ট) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।

শুনানিতে আদালত বলেন, ‘আমরা চাই, আপনারা দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য কিছু করেন। যদিও আপনারা দেশের স্বার্থেই কাজ করে চলেছেন। তবে আমরা চাই, দেশটা ভালো থাকুক। দেশ ভালো থাকলে দেশের মানুষও ভালো থাকবে। সবাই ভালো থাকার জন্যই দেশটা স্বাধীন করা হয়েছে।’

সুইস ব্যাংকে অর্থপাচারকারীদের বিষয়ে দেওয়া প্রতিবেদন নাম-পদবি ছাড়া যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে তা জমা দেওয়ায় বুধবার (৩১ আগস্ট) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম ও বিচারপতি খিজির হয়াতের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ মন্তব্য করে আদেশ দেন।

এসময় বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের প্রধান মাসুদ বিশ্বাস আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আন্না খানম কলি। দুদকের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এর আগে সকালে সুইস ব্যাংকে অর্থ জমাকারীদের বিষয়ে দেওয়া প্রতিবেদন নাম-পদবি ছাড়া জমা দেওয়ায় বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের প্রধান মাসুদ বিশ্বাস হাইকোর্টের তলবে হাজির হয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন।

এ সময় আদালত তাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘একেবারে দায়সারাভাবে প্রতিবেদনটি আদালতে জমা দিয়েছেন। নাম-পদবি ছাড়া একটা প্রতিবেদন উচ্চ আদালতে দিয়ে দিলেন, এটা কি ক্যালাসনেস না? আপনি আজ দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চাইছেন। আমরা এবার ক্ষমা করছি। কিন্তু ভবিষ্যতের জন্য আপনাদের সতর্ক হতে হবে।’

হাইকোর্ট বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, দেশ থেকে পাচার হওয়া টাকা দেশেই ফিরে আসবে। দেশ ভালো থাকলে আমরা সবাই ভালো থাকবো। ভালো থাকার জন্যই দেশটা স্বাধীন হয়েছে।’ এসময় বিচারক বলেন, ‘আমরা সবাই আন্তরিকভাবে কাজ করলে এ দেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ হবেই।’

হাইকোর্ট আরও বলেন, ‘মানি লন্ডারিংয়ের মতো অপরাধ এ দেশ থেকে কমাতেই হবে। আমরা সিঙ্গাপুর থেকে ভালো হতে চাই। যদিও এখন আমরা ভালো আছি।’ সিঙ্গাপুর আমাদের কাছাকাছি সময়ে স্বাধীন হয়েছে যোগ করেন বিচারক।

একপর্যায়ে হাইকোর্ট অর্থপাচার প্রতিরোধে সেল গঠন ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ব্যাংকে অর্থ জমাকারী বাংলাদেশিদের তথ্য চাওয়া-পাওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন আগামী ২৬ অক্টোবরের মধ্যে জমা দিতে বিএফআইইউ প্রধানের প্রতি নির্দেশ দেন।

হাইকোর্টের আদেশের পরেও যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে সুইস ব্যাংকে অর্থপাচার সংক্রান্ত বিষয়ে তথ্য দাখিল করায় মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) হাইকোর্টের একই বেঞ্চ মাসুদ বিশ্বাসকে তলব করে। তাকে বুধবার (৩১ আগস্ট) বেলা ১১টায় হাইকোর্টে উপস্থিত হতে আদেশ দেন।

কালের আলো/ডিএস/এএ

Print Friendly, PDF & Email