ত্রিশালে ট্রাকচাপায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী, স্বামী ও সন্তানের মৃত্যু, নবজাতকের জন্ম

প্রকাশিতঃ 7:53 pm | July 16, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ময়মনসিংহের ত্রিশালে ট্রাকচাপায় মারা গেছেন এক অন্তঃসত্ত্বা নারী, তার স্বামী ও মেয়ে। তবে মারা যাওয়ার আগে অন্তঃসত্ত্বা নারীটি সড়কেই প্রসব করেন একটি ফুটফুটে নবজাতক। শুধু তাই নয়, অলৌকিকভাবে বেঁচেও গেছে সেই নবজাতকটি। সদ্যপ্রসূত শিশুটিকে ময়মনসিংহ সদরের সিবিএমসি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (১৬ জুলাই) বেলা পৌনে ৩টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ত্রিশালের কোর্ট বিল্ডিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন জাহাঙ্গীর আলম (৪০), তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রত্না বেগম (৩২) ও তাঁদের মেয়ে সানজিদা (৬)। রত্না বেগম ছিলেন গর্ভবতী। ট্রাকচাপার সময় তার গর্ভ থেকে কন্যাশিশু রাস্তায় পরে যায়। পরে তার স্বজনরা শিশুকে সিবিএমসি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনেন। শিশুটি বর্তমানে শঙ্কামুক্ত।

নিহতদের বাড়ি ত্রিশাল উপজেলার রায়মনি গ্রামের ফকির বাড়ি। আজ দুপুরে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতদের লাশ ত্রিশাল থানায় আনা হয়েছে।

নিহত জাহাঙ্গীরের চাচাতো ভাই আরিফ রব্বানী বলেন, রত্না বেগম অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। তার ডেলিভারির তারিখ দুইদিন পার হয়ে যাওয়ায় তিনি একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আলট্রাসনোগ্রাফি করতে আসেন। এরপর সেখান থেকে ফেরার পথে রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি ও তার স্বামী-সন্তানের মৃত্যু হয়। তবে এসময় আঘাত পেয়ে সন্তান প্রসব করে ফেলেন রত্না।

ত্রিশাল থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন এই খবর নিশ্চিত করে বলেন, আজ বেলা আনুমানিক আড়াইটার দিকে নিহতেরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার হওয়ার সময় ময়মনসিংহগামী একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। পরে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email