শ্রীলঙ্কাকে ২০ কোটি টাকার জরুরি ওষুধ সহায়তা বাংলাদেশের

প্রকাশিতঃ 2:28 pm | May 05, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

চরম অর্থনৈতিক মন্দায় পড়া শ্রীলঙ্কাকে জরুরি ওষুধ সামগ্রী সহায়তা দিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৫ মে) দুপুরে রাজধানীর রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে শ্রীলঙ্কাকে জরুরি ওষুধ উপহার হস্তান্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

২০ কোটি টাকার ওষুধের মধ্যে বাংলাদেশ সরকার ১০ কোটি টাকার এবং বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান আরও ১০ কোটি টাকার ওষুধ সামগ্রী সরবরাহ করছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাজমুল আহসান পাপন এবং ঢাকায় নিযুক্ত শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার প্রফেসর সুদর্শন সেনেভিরাত্নে।

এ সময় পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (সচিব পূর্ব) মাশফি বিনতে শামস, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শ্রীলঙ্কান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (এসএলএমএ)-এর প্রকাশিত এক বিবৃতি অনুযায়ী, দেশটির সব হাসপাতালে এখন জরুরি ঔষধপত্র ও মেডিকেল ইকুইপমেন্টের সংকট তৈরি হয়েছে। অ্যানেসথেটিক (বেদনানাশক) ও রিএজেন্টের অভাবে বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে রুটিন সার্জারিগুলো স্থগিত করা হয়েছে, গবেষণাগারে পরীক্ষানিরীক্ষা কমানো হয়েছে।

পেরিনাটাল সোসাইটি অব শ্রীলঙ্কা’র প্রেসিডেন্ট হাসপাতালগুলোকে এনডোট্র্যাকিল টিউব জীবাণুনাশ করে পুনরায় ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন।

শ্রীলঙ্কার বিভিন্ন হাসপাতালেই চিকিৎসকদের ক্যাথেটার ও টিউব একাধিকবার ব্যবহার করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এতে রোগীদের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকলেও আপাতত এর বাইরে কোনো পথও খোলা নেই বলেও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে জানান দেশটির চিকিৎসকরা।

কালের আলো/বিএস/এমএইচ

Print Friendly, PDF & Email