স্বমহিমায় তৃণমূলের দোরগোড়ায় পুনাক

প্রকাশিতঃ 10:54 am | March 24, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

শুধু মানবিকতাই নয়। তৃণমূলের জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়নে দায়িত্বশীলতার অনেক নজির গড়েছে বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক)। পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জা দায়িত্ব নিয়েই বলেছিলেন, ‘পুনাক একটি ব্র্যান্ড’। আক্ষরিক অর্থেই পুনাককে স্বমহিমায় এগিয়ে নিতে তৃণমূলের দোরগোড়ায় নিজেদের নিবেদন করেছেন। ভাগ্যবিড়ম্বিত, দরিদ্র, অসহায়ের পাশে দাঁড়িয়েছেন। একটু উদ্যোগ নিলেই, সাহস করে এগোলেই কাক্সিক্ষত পরিবর্তন সম্ভব সেই বিষয়েও দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে পুনাক।

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের শারীরিক প্রতিবন্ধী শাহিদা খাতুনের কথাই ধরা যাক না । জন্ম থেকেই তার এক হাত, দুই পা নেই। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়েই চালিয়ে যাচ্ছেন জীবন যুদ্ধ। লেখাপড়া করেছেন, স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এক হাতেই শিখেছেন হস্তশিল্প ও সেলাইসহ বিভিন্ন কাজ। উচ্চশিক্ষার পরেও অদম্য শাহিদার ভাগ্যে জুটেনি চাকরি। এ নিয়ে গণমাধ্যমে উঠে আসে শাহিদার দু:খগাঁথা।

বরাবরের মতো এবারও এগিয়ে এসেছে পুনাক। সভানেত্রী জীশান মীর্জা নিজের ঐকান্তিক প্রয়াসের মাধ্যমে চাকরির বন্দোবস্ত করে দিয়েছেন শাহিদার। যশোরের নওয়াপাড়ায় অবস্থিত আকিজ জুট মিলে এক্সিকিউটিভ অফিসার পদে চাকরি হয়েছে শাহিদার।

পুলিশ সদর দপ্তর জানিয়েছে, যশোর জেলা পুলিশ সমাবেশ ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উপলক্ষে গত মঙ্গলবার (২২ মার্চ) দু’দিনের সফরে যশোর যান পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জা। এ সফরেরই বুধবার (২৩ মার্চ) ঝিকরগাছার শিমুলিয়া গ্রামে এক অনুষ্ঠানে শাহিদার হাতে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন তিনি।

এর আগে পুনাক সভানেত্রী শাহিদার পরিচালিত সৃষ্টিশীল নারী প্রতিবন্ধী কল্যাণ সংস্থার শিশুদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি পরম মমতায় প্রতিবন্ধী শিশুদের আদর করেন, তাদের খোঁজ খবর নেন। তিনি শিশুদের হাতে চকলেট, নতুন পোশাক ও বিভিন্ন উপহার তুলে দেন। পুনাক সভানেত্রী বাড়ির পাশে শাহিদার গড়ে তোলা সৃষ্টিশীল নারী প্রতিবন্ধী কল্যাণ সংস্থার মানবিক উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

নিয়োগপত্র পেয়ে খুশিতে আত্মহারা শাহিদা খাতুন। তিনি বলেন, ‘অবশেষে আমার একটা কর্মসংস্থান হলো। পড়াশোনা শেষ করেও চাকরি না হওয়ায় আমি খুব দুঃশ্চিন্তায় ছিলাম। পুনাক সভানেত্রীর কল্যাণে আমার একটা চাকরি হলো। এখন আমার মা-বাবার পাশে দাঁড়াতে পারব।’

কর্মসংস্থানের ব্যবস্থার মধ্যে দিয়ে শাহিদার পরিবারকে ঘুরে দাঁড়ানোর পথ সুগম করে দিয়েছেন পুনাক সভানেত্রী। প্রতিবন্ধিতাকে জয় করে সংগ্রামী এই নারীর এগিয়ে চলার অদম্য প্রয়াস আন্দোলিত করেছে তাকে। জীশান মীর্জা বলেছেন, ‘প্রতিষ্ঠার পর থেকেই পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি নিয়মিত কার্যক্রমের পাশাপাশি অসহায় ও দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। সেই ধারাবাহিকতায় শাহিদার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে পুনাক।’

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email