বাংলাদেশের লক্ষ্য সেঞ্চুরিয়নে প্রথম ওয়ানডে সিরিজ জয়

প্রকাশিতঃ 11:22 am | March 23, 2022

স্পোর্টস ডেস্ক, কালের আলো:

সেঞ্চুরিয়নে স্বপ্নপূরণের মধ্য দিয়ে সফর শুরু। বলা হয়, সফর যদি মনোলোভা হয়, গন্তব্যে যাওয়ার পথ মসৃণ হয়ে ওঠে। জোহানেসবার্গে গোলাপি-দুঃখ স্পর্শ করার পর সাকিব আল হাসানের পরিবারে অসুস্থতার ঢেউ মন খারাপের বাতাবরণ তৈরি করেছে।

এরই মাঝে সেঞ্চুরিয়ন থেকে জোহানেসবার্গ হয়ে বাংলাদেশ দল আবার সেঞ্চুরিয়নে। যেখানে প্রথম দক্ষিণ আফ্রিকা-জয়ের স্মৃতি এখনো সবুজ। সুখ-দুঃখ দুই সহোদর। হাত ধরাধরি করে চলে। সুখের পরে যদি দুঃখ আসে, তাহলে দুঃখের পরে আবার সুখ আসবে, এটাই তো হওয়া উচিত, তাই না?

এটাই যদি হয় প্রকৃতির নিয়ম, তাহলে আজ সেঞ্চুরিয়নে ফিরেও আসতে পারে সেঞ্চুরিয়ন। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ১-১। আজ তৃতীয় ও শেষ ওডিআই অলিখিত ফাইনাল। যারা জিতবে সিরিজ তাদের। রানপ্রসবা সুপারস্পোর্ট পার্কে বাংলাদেশের ৩১৪ এবং ৩৮ রানের অভূতপূর্ব জয়ের স্মৃতি এখনো সুরভি ছড়াচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০ বছরের খরা ঘুচিয়ে প্রথম জয়ের অনাবিল আনন্দ অনুপ্রেরণা হতে পারে বাংলাদেশের জন্য। প্রথম ম্যাচ জেতা যদি সম্ভব হয়, তাহলে সিরিজ নয় কেন? দিবারাত্রির সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টায়।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে তাদের উঠোনে হারানো যে সম্ভব, সেটি সফরের শুরুতেই দেখিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। সাকিবের ৭৭ রানের রোদেলা ব্যাটিং, তাসকিনের তিন ও মিরাজের চার উইকেট-এসব কিছুই এখন ‘তিন সত্যি’।

২০২১-এর শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার সময়টা কাটছে ভালো-মন্দে। এই সময়ে ১৫ ওডিআই খেলে জয় তাদের সাতটি। ছয়টি হার। দুই ম্যাচ অনিষ্পত্তি থাকে। তার মানে, দক্ষিণ আফ্রিকাকে তাদের মাঠে আবারও হারানো বাংলাদেশের জন্য কঠিন, অসম্ভব নয়।

আজ বাংলাদেশ অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে মাঠে নামতে পারে। এই ম্যাচ খেলেই ফিরে আসতে পারেন সাকিব। তার পরিবারের কয়েকজন সদস্য অসুস্থ। ব্যাটিংয়ে লিটন দাস, ইয়াসির আলী ও আফিফ হোসেনের সঙ্গে তামিম, সাকিব এবং মুশফিকুর ও মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে চাওয়ার আছে অনেক। বোলিংয়ে তাসকিন আহমেদের গতি শুরুতে দলের জন্য বড় সহায়। মোস্তাফিজুর রহমান নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে না পারলেও শেষের ওভারগুলোতে অধিনায়কের জন্য বড় ভরসা তিনি। শরীফুল ইসলাম পেস বোলিং আক্রমণে নতুন মাত্রা যোগ করেছেন।

মেহেদী হাসান মিরাজ একজন যোগ্য অলরাউন্ডার হয়ে উঠছেন। আর সাকিব তো আছেনই। পরিবারের দুর্যোগের সময়ও দলের সঙ্গে থেকে সিরিজ জেতার আকাক্সক্ষা তার পেশাদারিত্বের পরিচয় বহন করে। তার জন্য হলেও তামিমরা চাইবেন এই ম্যাচে নিজেদের নিংড়ে দিতে।

নিজেদের টপঅর্ডার নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, আমরা যদি প্রথম ১০ ওভার ওদের বোলারদের ভালোভাবে সামলাতে পারি, বেশি উইকেট না দিই, তাহলে ইনিংসের মাঝমাঝিতে অবশ্যই ভালো রান করতে পারব।’ দক্ষিণ আফ্রিকা শিবির স্বস্তিতে নেই। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি এই ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছে ওয়েন পারনেলকে। অধিনায়ক টেম্বা বাভুমার হাতের চোটও স্বাগতিকদের জন্য উদ্বেগের কারণ।

কালের আলো/এমএএইচ/জেআর

Print Friendly, PDF & Email