ঘরে থেকে ঈদ করুন, আমরা বাইরে আছি : র‍্যাব ডিজি

প্রকাশিতঃ 4:05 pm | May 22, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলোঃ

দেশজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণে চলমান সংকট বিবেচনায় এবারের ঈদে বাইরে ঘোরাফেরা নয়, বরং সবাইকে ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

তিনি বলেছেন, এবার একেবারেই ভিন্ন এক প্রেক্ষাপটে আমরা ঈদুল-ফিতর উদযাপন করতে যাচ্ছি, যখন প্রত্যেকটি জেলা করোনা আক্রান্ত। তাই দেশবাসীকে অনুরোধ করব ঈদের দিন কেউ ঘোরাফেরার জন্য বাইরে বের হবেন না। আপনারা ঘরে থাকুন আপনাদের জন্য আমরা বাইরে আছি।

শুক্রবার (২২ মে) আসন্ন ঈদুল-ফিতর ও চলমান করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে র‌্যাব গৃহীত আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক নিরাপত্তা ব্যবস্থার বিষয়ে অনলাইন ব্রিফিংয়ে র‍্যাব ডিজি এসব কথা বলেন।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, এবার ঈদের দিনে বিনোদনের নামে ঘোরাঘুরির বা কোনো বিনোদন কেন্দ্রে দর্শনীয় স্থানে জমায়েত করা যাবে না। বিনোদন কেন্দ্র বা দর্শনীয় স্থানগুলোতে র‌্যাবের নজরদারি থাকবে।

তিনি বলেন, ঈদের দিন সাধারণ মানুষ আত্মীয় স্বজনদের সঙ্গে মিলিত হতে চায়। নিজের জীবন রক্ষায় এবারের ঈদ ঘরের মধ্যেই থাকুন। আমরা আইন প্রয়োগ এবং দায়িত্ব পালন করছি। আমরা বাইরে আছি, আপনাদের নিরাপত্তায়। আপনারা ঘরে থাকুন।

বঙ্গবন্ধু ও শহীদদের স্মরণ
নিজের বক্তব্যের শুরুতেই র‌্যাবের ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদ ও ১৫ আগস্টে শহীদ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব সদস্যদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে তাদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করেন।

এছাড়া জঙ্গিবাদসহ দেশের স্বার্থে শান্তির ভিত রচনায় জীবন উৎস্বর্গকারী র‌্যাব ফোর্সেসের বীর সদস্যদের প্রতিও বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বলেন, ‘তাদের আত্নত্যাগই র‌্যাবকে সাধারণ মানুষের কাছে আস্থা ও নির্ভরতার জায়গায় এনে দিয়েছে।’

র‍্যাবের মানবিক উদ্যোগ 
করোনা সংকটে নিজ বাহিনী র‍্যাবের মানবিক উদ্যোগের কথা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপন করেন ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন। 

তিনি বলেন, র‌্যাব নিজেদের উদ্যোগে গরিব ও অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। এখন পর্যন্ত র‌্যাব প্রায় ১৩ হাজার পরিবারের মাঝে ৮৯ হাজার কেজি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে।

করোনার কারণে দেশের দুগ্ধ খামারীরা যাতে লোকসানে না পড়েন সে জন্য সিরাজগঞ্জের দুগ্ধ খামারীদের কাছ থেকে র‌্যাব প্রায় এক লাখ লিটার দুধ সংগ্রহ করেছে, বলেন র‍্যাব ডিজি। 

তিনি বলেন, যা দিয়ে চিজ ও অন্যান্য উপাদান তৈরি করে নিজেদের মধ্যে খরচের দামে বিক্রি করা হয়েছে।

বন্ধ নেই অপারেশন কার্যক্রম
করোনা পরিস্থিতিতে র‌্যাব মানবিক কাজে নিয়োজিত থাকলেও অপারেশনসহ অন্যান্য কার্যক্রম বন্ধ নেই বলেও জানান এই এলিট ফোর্সের মহাপরিচালক।

চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, করোনার পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ৩১ জন ধর্ষক, ৪৭ জঙ্গি, ১২৭টি অবৈধ অস্ত্র ও তিন হাজার ১০০ রাউন্ড গুলিসহ  ৮৯ জন, ৫৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার বিভিন্ন প্রকারের মাদকসহ ১ হাজার ৪৮৫ জন মাদককারবারীসহ মোট আড়াই হাজার আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গুজব শেয়ার অপরাধ
গুজব শেয়ার, লাইক বা কমেন্ট করাও এক ধরনের অপরাধ বলে মন্তব্য করেন র‍্যাব ডিজি। তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অপরাধে কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

গুজব প্রতিরোধে কোন তথ্য যাচাই না করে লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান তিনি। 

ঈদের জামায়াতে মসজিদে নজরদারি
ঈদের জামায়াতের কারণে মসজিদগুলোতে বেশি সময় ধরে নজরদারি করা হবে বলে সুস্পষ্টভাবে জানিয়েছেন বাহিনীটির প্রধান। 

এবারের ঈদ উদযাপন প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোনার কারণে যেহেতু এবার খোলা ময়দানে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে না, তাই আমাদের প্রস্তুতিও এবার ভিন্ন রকম। ঈদের জামায়াতের কারণে মসজিদগুলোতে বেশি সময় ধরে নজরদারি করা হবে। 

এক জামায়াত থেকে পরের জামায়াতের দূরত্ব যাতে আধা ঘণ্টার বেশি সময় হয়, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা ও মসজিদে প্রবেশ এবং বের হওয়াও নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

বাড়ানো হয়েছে চেকপোস্ট 
আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে চেকপোস্ট বাড়ানো হয়েছে বলে জানান র‍্যাব মহাপরিচালক। তিনি বলেন, র‌্যাব গোয়েন্দা বিভাগ, সাদা পোষাকের র‌্যাব, ডগ স্কয়াড, হেলিকপ্টার, বোম্ব ডিসপোজাল টিমসহ সব ধরনের প্রস্তুতি আমাদের নেওয়া হয়েছে। গণপরিবহন যাতে চলাচল না করতে পারে তাও নিশ্চিত করা হবে

কারফিউ দেওয়ার মতো পরিস্থিতি হয়নি 
প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে তাতে করে কারফিউ দেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কীনা এমন প্রশ্ন করেন এক গণমাধ্যম কর্মী। 

এই প্রশ্নের উত্তরে চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, কারফিউ দেওয়ার মতো পরিস্থিতি এখনো তৈরি হয়নি। সরকার সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা চিন্তা করে যে সিদ্ধান্ত নিবে তা বাস্তবায়ন করবে র‌্যাব।

ব্যাক্তিগব গাড়িতে বাড়ি যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানুষজন ব্যাক্তিগত গাড়িতে করে বাড়ি যেতে পারবেন। তবে কোনভাবেই গণপরিবহন ব্যবহার করা যাবে না।
নিজের জন্য, পরিবারের, সন্তানের জন্য সবাইকে ঘরে থেকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান জানান তিনি। বলেন, আমরা আপনাদের জন্য আমরা বাইরে আছি আপনারা ঘরে থাকুন।

নিরাপত্তা হুমকি নেই
ঈদ উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলায় কোন হুমকি আছে কিনা জানতে চাইলে র‌্যাব প্রধান চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আশ্বস্ত করতে চাই আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকবে। কারণ, র‌্যাব করোনা পরিস্থিতিতে তাদের অপারেশনাল কার্যক্রম অব্যাহৃত রেখেছে। গোয়েন্দারা মাঠে কাজ করছে। এই ধরণের কোন হামলা বা হুমকি নেই এবারও।

তিনি বলেন, উসকানি, নাশকতামূলক ও জঙ্গি অপতৎপরতা বন্ধে নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি চেকপোস্ট বাড়ানো হয়েছে। র‌্যাবের সাইবার টিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মনিটরিং করছে। এছাড়া র‌্যাবের রিজার্ভ ফোর্স, বোম ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে অনলাইন ভিডিও কনফারেন্সে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বিপিএম, পিএসসি, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডিআইজি জামিল আহমদ বিপিএম, পিপিএমসহ সদর দপ্তরের সকল পরিচালক, উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/বিএম/এনএল

Print Friendly, PDF & Email