বলিভিয়ায় মেয়রের চুল কেটে রঙ মেখে শহর ঘোরালেন বিক্ষোভকারীরা

প্রকাশিতঃ 4:12 pm | November 08, 2019

কালের আলো ডেস্ক:

বলিভিয়ার ছোট্ট শহর ভিনতো’র নারী মেয়র পেট্রিশিয়া আরসি-কে জোর করে ধরে নিয়ে চুল কেটে গায়ে লাল রঙ মেখে খালি পায়ে শহর ঘুরিয়েছেন সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীরা। গত বুধবার (৬ নভেম্বর) এই ঘটনা ঘটে।

নিউইয়র্ক টাইমস জানায়, শুধু রঙ মেখে শহর ঘুরিয়ে লাঞ্ছিত করেই ক্ষান্ত হননি বিক্ষোভকারীরা। জোর করে পদত্যাগপত্রে সই করিয়েও নিয়েছে।

প্যাট্রিশিয়া আরসি সরকারবিরোধী অবরোধ ভেঙে দিতে বুধবার লোকজনকে নিয়ে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েন। এতে এক সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ।

বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসের নেতৃত্বাধীন দলের একজন সদস্য মেয়র প্যাট্রিশিয়া আরসি। গত ২০ অক্টোবরের নির্বাচনে নিজেকে চতুর্থবারের মতো বিজয়ী ঘোষণা করেন মোরালেস। কিন্তু নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগে তোলেন বিরোধীরা।

গতমাসে বলিভিয়ায় বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর সহিংসতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। বিক্ষোভ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সহিংসতায় দেশটিতে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে। এতে এখন পর্যন্ত তিন ব্যক্তির নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানী লা পাজেও সহিংস প্রতিবাদ অব্যাহত ছিল। হাত বোমার আঘাতে অন্তত চার জন্য আহত হয়েছেন, যাদের মধ্যে দুই পুলিশ কর্মকর্তা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, দিনের শুরুতেই ভিনতো শহরে বিক্ষোভ শুরু হয়। শহরের সবেচেয় গুরুত্বপূর্ণ সেতুটি অবরুদ্ধ করে রাখা বিরোধীদের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েন মোরালেসের সমর্থকরাও।

সরকার সমর্থকদের হাতে এক কিশোরের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে মেয়রের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে সরকারবিরোধীরা শহরের দিকে এগিয়ে যান। অবরোধ ভেঙে দিতে প্যাট্রিশিয়াও কয়েক হাজার সমর্থককে জড়ো করেন।

মুখোশ পরা বিক্ষোভকারীরা অফিস থেকে প্যাট্রিশিয়াকে টেনহিঁচড়ে বের করে নিয়ে আসে। এরপর খালি পায়ে তাকে সেতুর দিকে নিয়ে যায়। তাকে হত্যাকারী আখ্যায়িত করে হাঁটু গেড়ে বসিয়ে তার চুল কেটে দেন তাঁরা। এরপর লাল রঙ তার শরীরে ঢেলে দেন ও পদত্যাগপত্রে সই করতে বাধ্য করেন। তাকে নিয়ে শহরময় পদযাত্রায় বের হন অবরোধকারীরা।

মেয়রের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মোরালেস।

কালের আলো/এডিবি
নভেম্বর ৮, ২০১৯

Print Friendly, PDF & Email