প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির দাওয়াত, জনপ্রতি থাকবে ৩০ টাকার ইফতার

প্রকাশিতঃ 9:01 pm | May 26, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ইফতারের দাওয়াত দিয়েছে বিএনপি।

রোববার(২৬ মে) বিকাল ৪টার পর আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপির তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল আমন্ত্রণ পত্র নিয়ে আসেন।

তারা হলেন- দলের সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ ও নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম। সেখানে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া আমন্ত্রণপত্র গ্রহণ করেন। এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ব্যাক্তিগত কর্মকর্তা সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম ও জিএম মাসুদুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

২৮ মে রাজধানীর লেডিস ক্লাবে রাজনীতিবিদ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও বিশিষ্টজনদের সম্মানে ইফতার মাহফিল আয়োজন করতে যাচ্ছে বিএনপি।

পরে বিপ্লব বড়ূয়া সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সব রাজনৈতিক দলের সম্মানে ইফতারের আয়োজন ছিল। সেখানে বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের সব নেতাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। শনিবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি নির্দেশনায় আমি বিশেষ সহকারী হিসাবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সঙ্গে টেলিফোনে আমন্ত্রণের বিষয়টি অবহিত করি। তারা আমাকে জানিয়েছেন, তারা দাওয়াত পেয়েছেন। কিন্তু তাদের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি থাকায় অনুষ্ঠানে আসতে পারবেন না। তারা আসলে ভালো হতো।

বিএনপির দাওয়াতে যাবেন কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ২৮ তারিখ সকালে জাপান সফরে যাবেন। আর আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক কিছু দিন আগে চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরেছেন। ওনারা আজকে সবেমাত্র দাওয়াত দিলেন। আমরা দলীয় হাইকমান্ডে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।

জানা গেছে, কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে কারাবিধি মোতাবেক দেয়া ইফতারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ইফতার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। জনপ্রতি ৩০ টাকা করে ইফতার করবেন তারা।

জানতে চাইলে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, ম্যাডাম কারাগারে ৩০ টাকার ইফতার খাচ্ছেন। সেই কারণে আমাদের সব ইফতার এখন ৩০ টাকার। ২৮ মে লেডিস ক্লাবে রাজনীতিবিদদের জন্য যে ইফতার মাহফিল আয়োজন করা হচ্ছে, সেখানেও আমরা ৩০ টাকার ইফতার খাব। ক্যাটারিংকে সেভাবেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

৩০ টাকার ইফতারের প্যাকেজে থাকবে ছোট একটি পানির বোতল, এক পিস খেজুর, এক পিস পেয়াজু, এক পিস বেগুনি, এক পিস ছোট জিলাপি, এক মুঠো মুড়ি এবং সামান্য কিছু ছোলা।

কালের আলো/পিএ/আরএম

Print Friendly, PDF & Email