শোভন-রাব্বানীর ‘গোমর ফাঁস’করলেন ছাত্রলীগ নেত্রী জেরিন দিয়া

প্রকাশিতঃ 5:05 am | May 14, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো :

বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী’র। এবার তাদের চারিত্রিক গোমর ফাঁস করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য জেরিন দিয়া। ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন।

তিনি বলেছেন, নানা কৌশলেই যৌন হয়রানি করতেন তাঁরা। বিশেষ করে দুই নেতাকে নিয়ে সোমবার (১৩ মে) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া তাঁর স্ট্যাটাসটি রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে। এ বিষয়ে জেরিন দিয়া’র সঙ্গে এদিন রাত দেড়টার দিকে কথা বলে কালের আলো।

আরো পড়ুন: ছাত্রলীগের হামলার নেতৃত্বে ৫ নেতা, নির্দয়ভাবে পেটানো হয়েছে শ্রাবণী শায়লাকে!

প্রায় ৪ বছর যাবত ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত জেরিন দিয়া। ২০১৪-১৫ সালের এ শিক্ষার্থী সোহাগ-জাকিরের কমিটির সদস্য ছিলেন। এরপর তাদের বিদায়ের পর সক্রিয় হন রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের বলয়ে। দলীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে সম্পর্কটা আগে থেকেই ভালো না।

সম্পর্কের তিক্ততার পেছনে গোলাম রাব্বানীকেই দায়ী করেন ছাত্রলীগ নেত্রী জেরিন দিয়া। কালের আলোকে তিনি বলেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার আগে রাব্বানী ভাই আমাদের সিনিয়র আপুদের নিয়ে ফেসবুকে বাজে পোস্ট দিয়েছিলো। আমি সেটির প্রতিবাদ করেছিলাম।

আরো পড়ুন: শেখ হাসিনার সাক্ষাত চান আহত ছাত্রলীগ নেতা-নেত্রীরা

সেই স্ট্যাটাসের কমেন্টস’র সূত্র ধরে রাব্বানী ভাই আমাকে বলেছিলো, দুই দিনের মেয়ে রাজনীতি করো। এনএসআই’র রিপোর্ট এ জানা যাবে কয়জনের বেডে গেছো। সব আমি জানি। আমি রাব্বানী ভাইয়ের কথার জবাব দেই।

তাকে আমি পাল্টা বলেছিলাম, আপনাকেও চার বছরে চারদিনও রাজনীতিতে দেখিনি। তাঁর সঙ্গে ওই সময় আমার সিনক্রিয়েট হয়। রাব্বানী ভাই আমাকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন।’

ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন কথা দিয়ে কথা রাখেননি বলেও অভিযোগ করেন দিয়া। কালের আলোকে তিনি বলেন, কী রে চেহারা সুন্দর আছে; তো সেজেগুজে আসতে পারো না। শোভন ভাই মেয়েদের সঙ্গে হ্যান্ডশেক করতো। আমি করতাম না। তিনি বিশ্রী ভাষায় কথা বলতেন। এজন্যই আমি স্ট্যাটাসে বলেছি, আমি সেজেগুজে আসি নাই বলেই কি আমাকে কমিটিতে রাখলেন না?

আরো পড়ুন: বিবাহিত সোহানী তিথি ও আঞ্জুমান অনু কীভাবে ছাত্রলীগের কমিটিতে?

জেরিন দিয়া ডাকসুতে নির্বাচন করতে চাইলেও শোভন তাকে পরামর্শ দিয়েছিলেন ছাত্রলীগের রাজনীতি করতে। সেই প্রসঙ্গ টেনে তিনি কালের আলোকে বলেন, ‘আমি ৮ থেকে ৯ মাস যাবত শোভন ভাইয়ের সঙ্গে রাজনীতি করছি। আমাকে শোভন ভাই বলতো, বেশি করে মেয়ে নিয়ে আসবে।

আমি ডাকসু করতে চেয়েছিলাম। শোভন ভাই বললো, তুমি ছাত্রলীগ করবা। তিনি আমাকে ডাকসু প্যানেলে রাখেননি। তিনি আমাকে রাজনীতি করার ফ্লোর দিয়েছেন বলেই আমি সামনে থাকতাম। আমার বিশ্বাস ছিলো তিনি আমাকে কমিটিতে রাখবেন। কিন্তু রাখেননি।

এ প্রসঙ্গে আবারো রাব্বানীর কথা উচ্চারণ করেন দিয়া। তিনি বলেন, ক’দিন আগে ছাত্রলীগের একটি খসড়া কমিটি প্রকাশ পেয়েছিলো। সেই কমিটি দেখে আমি শোভন ভাইকে বললাম, আমার নাম কেন দেওয়া হয়নি? তখন তিনি বললেন, রাব্বানী ঝামেলা করছে। তখন আমি রাব্বানী ভাইকে ফোন দিয়ে বলি, ভাই ওই ঘটনার জন্যই কী আমার নাম দেননি? আপনি শোধ নিয়েছেন?

আরো পড়ুন: হামলায় আহতদের পাশে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত, বিচার চান হামলাকারীদের

এর আগে ছাত্রলীগ নেত্রী জেরিন দিয়া নিজের ফেসবুক ওয়ালে দেওয়া স্ট্যাটাসে বলেন, ‘রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানী ভাই আপনাদের মধুভর্তি মেয়ে লাগে। বড় বড় প্রোগ্রামে মেয়েদের মুখ না দেখলে তো আপনাদের মন ভরত না। শোভন ভাই আপনি একদিন আমাকে সবার সামনে বলছিলেন কী রে চেহারা সুন্দর আছে; তো সেজেগুজে আসতে পারো না!

আমি সেজেগুজে আসতে পারি নাই দেখে আমাকে কমিটিতে রাখলেন না??
আপনারা যেসব মেয়েকে কমিটিতে রেখেছেন তারা কয়দিন থেকে রাজনীতি করে! আপা কি জানেন?? আর নিজে বিবাহিত বলে কমিটিতে দুনিয়ার বিবাহিত মেয়েদের রেখেছেন!!!

আরো পড়ুন: ‘ব্যর্থ’ শোভন-রাব্বানী, পদবঞ্চিত নারী নেত্রীদের ওপর ‘মধ্যযুগীয়’ হামলার নেপথ্যে কী?

আর গোলাম রাব্বানী ভাই আমাকে সবার সামনে বলছিলেন দুইদিনের মেয়ে কেমনে পোস্ট পাইছো বুঝি নাই! কয়জনের বেডে গেছো রিপোর্ট করলেই জানা যাবে। মনে আছে গোলাম রাব্বানী ভাই?????? আমি তখন আপনার যোগ্য কথার জবাব দিয়েছিলাম। আজ তার শোধ নিলেন????? অনেক তথ্য অপেক্ষা করছে আপনাদের জন্য।

এই বিবাহিত বিতর্কিত কমিটি মানি না; মানবো না…আমার শ্রমের মূল্য দিতে হবে আপনাদের।’

কালের আলো/এএ

Print Friendly, PDF & Email