পুলিশ-ফায়ার সার্ভিস সঙ্গে নিয়ে এফ আর টাওয়ারে অফিস প্রতিনিধিরা

প্রকাশিতঃ 6:20 pm | March 29, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে এফ আর টাওয়ারে প্রবেশ করেছেন ওই ভবনে থাকা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও মালিকরা। এসময় তাদের ছবি না তোলার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) বিকেল ৫টার দিকে পুলিশের নেতৃত্বে ১৯টি টিম ভবনটিতে প্রবেশ করে।

ডিএমপি গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার মোশতাক আহমেদ জানান, প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের দুজন করে প্রতিনিধি নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিয়ে ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনটিতে থাকা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা ভেতরে যাবেন। তারা গিয়ে নিজ নিজ অফিসের অবস্থা দেখে আসবেন। এছাড়া, অফিসে যদি মূল্যবান কোনও জিনিসপত্র ও টাকা-পয়সা থাকে, তা সঙ্গে করে নিয়ে আসবেন। অথবা গুছিয়ে নিরাপদে রেখে আসবেন।

এর আগে, দুপুর ২টার দিকে উদ্ধার অভিযান সমাপ্তির ঘোষণা দেন ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর একেএম শাকিল নেওয়াজ।

তিনি বলেন, এফআর টাওয়ারে আর কোনো লাশ নেই। আগুন পুরোপুরি নিভে গেছে। নতুন করে কোনো লাশের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

সকালে দমকল বাহিনীর সিনিয়র স্টেশন অফিসার খুরশীদ আনোয়ার জানান, আগুন রাতে নিয়ন্ত্রণে আনার পর উদ্ধারকাজ বন্ধ রাখা হয়, তবে আবার যেন আগুন ছড়িয়ে পরতে না পারে তা নিশ্চিত করতে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট সারারাতই ঘটনাস্থলে ছিল।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার দুপুরে আগুন লাগে এফআর টাওয়ারে। ভবনের ৯ম তলায় আগুনের সূত্রপাত। পরে ছড়িয়ে পড়ে ২৩তলা ভবনের বেশ কয়েকটি তলায়। আগুন লাগার চার ঘণ্টার বেশি সময় পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। পরে এ কাজে দমকল বাহিনীর ১৭টি ইউনিট কাজ করে। সেই সঙ্গে যোগ দেয় অন্যান্য বাহিনীও। পরে তাদের সাথে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী যৌথভাবে কাজ শুরু করে। সাথে স্থানীয় মানুষেরাও যোগ দেন।

ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় এ পর্যন্ত ২৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস।

কালের আলো/এমএইচএ

Print Friendly, PDF & Email