ময়মনসিংহে মোটরসাইকেল চালক হত্যা মামলার মূলহোতা গ্রেফতার

প্রকাশিতঃ 6:52 pm | January 30, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ময়মনসিংহে অভিযান চালিয়ে মোটরসাইকেল চালক মেহেদী হাসান গোলাপ হত্যা মামলার মূলহোতা ইমরান মিয়াকে (২৩) গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে ডিবি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জানান, নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলার সোহাগীহদর এলাকার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালামের একমাত্র ছেলে মেহেদী হাসান গোলাপ (২৮)। তিনি ভাড়ায় মোটরসাইকেল ভাড়ায় চালিয়ে সংসার চালাতেন। ঘটনার কিছুদিন আগে তিনি একটি নতুন মোটরসাইকেল কেনেছিলেন।

গত ২৩ জানুয়ারি (বুধবার) সন্ধ্যায় পূর্বধলার হুগলা বাজার থেকে দুইজন যাত্রী তারাকান্দা যাওয়ার কথা বলে তার মোটরসাইকেলে ওঠেন। তারা ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার চিক বিল নামক হাওর এলাকার মাঝখানে যাওয়ার পর মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে গোলাপ তাতে বাঁধা দেন। একপর্যায়ে ছিনতাইকারীরা তাকে ছুরিকাঘাত করলে চিৎকার করেন। এতে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।

পরে আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিনই তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় তারাকান্দা থানায় অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। পরে ওই মামলার তদন্তভার জেলা গোয়েন্দা শাখার ওপর দেন জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন।

এক সপ্তাহের মধ্যে মামলার রহস্য উদঘাটন করে মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) রাতে নেত্রকোণার পূর্বধলা থেকে এ ঘটনার মূলহোতা ইমরানকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সে এ হত্যাকাণ্ডের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। ইমরান জানায়, নিহত গোলাপের নতুন মোটরসাইকেলটি ছিনতাই করার জন্য তাদের পূর্ব পরিকল্পনা ছিলো।

পরে তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি এবং ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

কালের আলো/ওএইচ

Print Friendly, PDF & Email