বিজয় সমাবেশে’ গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 12:05 pm | January 19, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলোঃ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় উপলক্ষে শনিবার দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিজয় সমাবেশ করছে আওয়ামী লীগ। এই সমাবেশে সভাপতিত্ব করবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই সমাবেশ থেকে প্রধানমন্ত্রী গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বার্তা দেবেন বলে জানা গেছে।

বিজয় সমাবেশ হলেও দলের নতুন মন্ত্রী, সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ সবার প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি দেবেন সরকার প্রধান।

একইসঙ্গে সমাবেশে তিনি আগামী দিনের জন্য দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেবেন। আওয়ামী লীগের সরকার কী কী করেছে, সামনে সরকারের অগ্রাধিকার কী, তা তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী।

গণতন্ত্রের স্বার্থে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির নির্বাচিত সাংসদদের শপথ নিয়ে সংসদে আসার আহ্বান থাকতে পারে। এছাড়াও সমাবেশে বক্তব্য দেবেন আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দরা।

সমাবেশ শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়। তবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হবে দুপুর ১২টা থেকে। বেলা ১১টায় সমাবেশস্থলে প্রবেশের গেট খুলে দেওয়া হবে। বিজয় সমাবেশ উপলক্ষে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আওয়ামী লীগ। সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে দলের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

সমাবেশের মঞ্চ, সাজসজ্জা, মাঠ পরিষ্কার করা হয়েছে। খাবারের পানি, পয়ঃনিষ্কাশনের ব্যবস্থাসহ সব প্রস্তুতি রাখা হয়েছে। সমাবেশস্থলে কেউ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থাও থাকবে।

সমাবেশে ব্যাপক জনসমাগমের জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনা দেওয়া আছে, উদ্যানের ছয়টি গেটের মধ্যে শিখা চিরন্তন গেট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং জাতীয় নেতৃবৃন্দ, ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশনের গেট দিয়ে আমন্ত্রিত অতিথিরা প্রবেশ করবেন। সমাবেশে শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য নেতাকর্মীদের মিছিলে বহন করে আনা ব্যানার- ফেসটুন নিয়ে সমাবেশস্থলে যাওয়া নিষেধ।

তিন নেতার মাজারসংলগ্ন গেট, বাংলা একাডেমির সামনের গেট, টিএসসি গেট ও চারুকলার সামনের গেট দিয়ে দলীয় নেতাকর্মীরা প্রবেশ করবেন। সমাবেশস্থলকে নান্দনিক শৈল্পিকভাবে সাজানো হয়েছে।

সমাবেশের বিশাল প্যান্ডেলে প্রায় ৩০ হাজার চেয়ার বসানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে কয়েক লাখ লোকের সমাবেশ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

কালের আলো/এএ/এমএইচএ

Print Friendly, PDF & Email